• Fri. Oct 30th, 2020

Susang Durgapur-সুসং দুর্গাপুর

A place where you can find inner peace

নেত্রকোনার দুর্গাপুর যেন পৃথিবীর বুকে স্বর্গ

Bysusangauvi_st

Aug 25, 2020

দুর্গাপুরের আসল সৌন্দর্য বলা হয়ে থাকে সোমেশ্বরী নদীকে

ইউএনবি

প্রকৃতি আমাদের দুশ্চিন্তা বা ক্লান্তি দূর করে মনকে দিতে পারে প্রশান্তি। বলা হয়ে থাকে যে, আমাদের প্রতি বছরই একটি নতুন জায়গায় ভ্রমণ করা উচিত। কিন্তু আপনাকে যখন সপ্তাহের ছয় দিনই কাজ করতে হয়, তখন বিলাসবহুল কোনো ভ্রমণ পরিকল্পনা করা সম্ভব নাও হতে পারে। আপনি যদি একদিনের মধ্যেই গোলাপী পাহাড়, নীল জলের পুকুর আর নদীর অপরুপ সৌন্দর্য উপভোগ করতে চান, তাহলে ঘুরে আসতে পারেন নেত্রকোনার দুর্গাপুর থেকে।

স্বর্গীয় এই স্থানটির অবস্থান বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলে। ভারতের সীমান্তবর্তী অঞ্চলে অবস্থিত হওয়ায় এখান থেকেই উপভোগ করা যায় মেঘালয়ের সুউচ্চ পাহাড়ের সৌন্দর্য। দেশের অন্যান্য পর্যটন স্পটের মতো প্রচারণা না থাকলেও, দুর্গাপুর নিঃসন্দেহে বাংলাদেশের অন্যতম সুন্দর স্থান।  

চলুন জেনে নেই দুর্গাপুর সম্পর্কে আকর্ষণীয় কিছু তথ্য:


 সোমেশ্বরী নদী

দুর্গাপুরের আসল সৌন্দর্যই বলা হয়ে থাকে এই সোমেশ্বরী নদীকে। ভারতের মেঘালয় রাজ্যের গারো পাহাড়ের বিঞ্চুরীছড়া, বাঙাছড়া প্রভৃতি ঝর্ণাধারা ও পশ্চিম দিক থেকে রমফা নদীর স্রোতধারা একত্রিত হয়ে সৃষ্টি হয়েছে সোমেশ্বরী নদী। এ নদী বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে রানিখং পাহাড়ের পাশ ঘেঁষে।পাহাড়, নদী আর গাছপালা দিয়ে ঘেরা নেত্রকোনা জেলার দুর্গাপুর উপজেলার সোমেশ্বরী নদীর সৌন্দর্য আপনার নজর কাড়বেই।

এক সময় সিমসাং নামে পরিচিত থাকলেও, সোমেশ্বর পাঠক নামে এক সিদ্ধপুরুষ ওই অঞ্চল দখল করে নিলে নদীটি পরিচিতি পায় সোমেশ্বরী নামে। আবার সিমসাংগ্রি থেকে উৎপত্তি হয়েছে বলে এর নাম সোমেশ্বরী রাখা হয়েছিল, এমন ধারণাও প্রচলিত রয়েছে।

এক এক ঋতুতে এই নদী এক এক রূপ লাভ করে। বর্ষায় এই নদীর পানি বেড়ে গেলেও, শীতে এখানে হাঁটুজল থাকে। সেই হাঁটুজলে পা ভিজিয়ে হাঁটার অভিজ্ঞতা মনে গেঁথে থাকবে চিরকাল।

এখানকার চীনামাটির পাহাড়, যার বুক চিরে জেগে উঠেছে নীলচে-সবুজ এক হ্রদ। তবে অপূর্ব এই সৌন্দর্য উপভোগ করতে হতে হলে যেতে হবে বিরিশিরি থেকে কিছুটা দূরে অবস্থিত বিজয়পুরের চীনামাটির পাহাড়ে।

এই পাহাড় থেকে মাটি কাটার ফলে সৃষ্টি হয়েছে অনিন্দ্য সুন্দর হ্রদের। নীল জলের এই হ্রদ যে কারো ক্লান্তি-অবসাদ দূর করবে নিমিষেই। এছাড়া চীনামাটির এই পাহাড়ের পাদদেশ দিয়ে বয়ে গেছে অপরুপ সোমেশ্বরী নদী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *